ফাইনালে খেলার আশা ছাড়ছেন না বাংলাদেশ কোচ

For English speakers
below given in English,

ফাইনালে খেলার আশা ছাড়ছেন না বাংলাদেশ কোচ

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মালদ্বীপ। স্বাগতিকদের কাছে দ্বিতীয়ার্ধের দুই গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। তবে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে প্রথম হার দেখলেও ফাইনালে খেলার আশা ছাড়ছেন না বাংলাদেশ কোচ অস্কার ব্রুজন।

মালেতে বৃহস্পতিবার পুরো ম্যাচে মালদ্বীপ দাপট দেখিয়েছে। গোলের সুযোগও বেশি পেয়েছে। বিপরীতে বাংলাদেশ রক্ষণ সামলিয়ে খেলার চেষ্টা করেও বিরতির পর আর জাল অক্ষত রাখতে পারেনি। প্রচুর ফাউল করে খেলার প্রবণতা ছিল। এর জন্য হলুদ কার্ডও দেখতে হয়েছে ৫টি। একপর্যায়ে দলকে কিছুটা ক্লান্তই মনে হয়েছে।

তাই তো লাল-সবুজ দলের কোচ অস্কার ব্রুজন সংবাদ সম্মেলনে এসে মালদ্বীপকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন,‘ তারা আজ আমাদের চেয়ে ভালো ছিল। আমাদের কোনোও কিছুই কাজ করেনি। আমি ভেবেছিলাম ছেলেরা ৯০ মিনিট লড়াই করবে। কিন্তু দুই দলের মূল পার্থক্য এনার্জি; এ দিকটায় মালদ্বীপ আমাদের চেয়ে অনেক অনেক ভালো ছিল।’

ফাইনালে জায়গা করে নিতে হলে বাংলাদেশকে পরের ম্যাচে নেপালকে হারাতেই হবে। সেই ম্যাচটি হবে ১৩ অক্টোবর। ব্রুজন তাই আশা ছাড়ছেন না,‘৭২ ঘণ্টা পর পর আমাদের একটা করে ম্যাচ খেলতে হয়েছে। আমাদের পরের ম্যাচ নেপালের বিপক্ষে ১৩ অক্টোবর। ওই ম্যাচে আমরা সতেজ হয়ে ফিরব। আশা করি, যে এনার্জি আজ আমাদের ছিল না, নেপালের বিপক্ষে ম্যাচে থাকবে। এখনও আমাদের সুযোগ আছে ফাইনাল খেলার।’

মালদ্বীপে দুই গোলে ম্যাচ জিতেছে। কিন্তু যেভাবে স্বাগতিকরা খেলেছে তাতে করে ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। বাংলাদেশ গোল হজমের পর ফর্মেশন বদল করে সফল হতে পারেননি। ব্রুজন বলেছেন,‘মালদ্বীপ এগিয়ে যাওয়ার পর আমরা ফরমেশনে বদল এনেছিলাম। একটু আক্রমণাত্মক হওয়ার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু আক্রমণভাগে তারা আমাদের চেয়ে স্বচ্ছ্ন্দ্য ছিল। সত্যি বলতে তারা আরও বড় ব্যবধানে জিততে পারত। তবে প্রথমার্ধে তারা একটা সুযোগও তৈরি করতে পারেনি। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে তারা যে গতি দেখিয়েছে, ম্যাচটা পুরোপুরি আমাদের হাতছাড়া হয়ে যায়।’

এক সপ্তাহের মধ্যে তিনটি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ দল ক্লান্ত। স্বাগতিকদের বিপক্ষে ক্লান্তির প্রসঙ্গে ব্রুজন অকপটে বললেন,‘প্রথম ৫০ মিনিট…আমি আসলেই মনে করি ম্যাচটা ছিল ফিফটি-ফিফটি। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে তাদের পাল্টা জবাব দেওয়ার উপায় আমাদের জানা ছিল না। গত ১৪ দিনে আমরা দেড় দিনও বিশ্রাম পাইনি। বলতে পারি, অনুশীলনে ছেলেদের এনার্জি আগের মতো ছিল না। ক্লান্ত ও অবসন্ন ছিল তারা। তবে নেপাল ম্যাচের আগে আমরা যথেষ্ট সময় পাবো।’

ফাইনালে জায়গা করে নিতে হলে নেপালের বিপক্ষে ম্যাচ তো জিততেই হবে। শুধু তাই নয় চেয়ে থাকতে হবে অন্য দলগুলোর ফলের দিকেও।

তথ্যসূত্র :-স্থানীয় সংবাদকর্মী

 

Bangladesh coach not giving up hope of playing in final

Current champion Maldives in the Saf Championship. Bangladesh lost to the hosts by two second-half goals. However, despite seeing their first defeat in their third match, Bangladesh coach Oscar Brujn is not giving up hope of playing in the final.

Maldives showed momentum throughout the match in Male on Thursday. He also got more chances to score. Bangladesh, on the contrary, tried to manage their defence but could not keep the net intact after the break. There was a tendency to play with a lot of fouls. It also had to see 5 yellow cards. At one point the team seemed a little tired.

So red-green coach Oscar Bruzon came to the press conference and congratulated maldives and said, ‘They were better than us today. None of us worked. I thought the boys would fight for 90 minutes. But the main difference between the two parties is energy; Maldives was much better than us in this direction. ’

Bangladesh will have to beat Nepal in the next match to make it to the final. That match will be on October 13. Brujon is not giving up hope,’ we had to play one match after 72 hours. Our next match is against Nepal on October 13. We’ll be back fresh in that match. Hopefully, the energy that we didn’t have today will be in the match against Nepal. We still have a chance to play in the final. ’

Won the match by two goals in maldives. But the way the hosts played could have widened the gap. Bangladesh could not succeed by changing the formation after digesting the goal. Brujon said, ‘We changed the formation after the Maldives moved forward. I tried to be a little aggressive. But they were more transparent than us in the attack. To be honest they could have won by a bigger margin. But they could not create a single chance in the first half. But the pace they showed in the second half completely missed us. ’

Bangladesh are tired of playing three matches in a week. ‘The first 50 minutes… I really think the match was fifty-fifty. But we didn’t know how to reply back to them in the second half. We haven’t had a day and a half of rest in the last 14 days. I can say that the energy of the boys in practice was not the same as before. They were tired and depressed. But we will get enough time before the Nepal match. ’

To make it to the final, you have to win the match against Nepal. Not only that, we have to look at the fruits of other groups as well.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *